মেনু নির্বাচন করুন

দর্শনীয় স্থান

ক্রমিক নাম কিভাবে যাওয়া যায় অবস্থান
বড় পাথর ঢাকা – বান্দারবান যাওয়ার ইউনিক, এস আলম, ডলফিন এর বাস আছে ।রাত ১১:৩০ টায় কলাবাগান থেকে ছেড়ে যায়। ভাড়া ৩০০-৩৫০ টাকা। আমি ইউনিক প্রেফার করব। নতুন বাস। তাদের সার্ভিস ও ভালো। ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হয়েও যাওয়া যায়। বদ্দারহাট থেকে বান্দারবানের বাস ছাড়ে। সকাল ৭:৩০ এর মধ্যেই বান্দারবান পৌছে যাবেন। এখান থেকে চান্দের গাড়ী নিয়ে সোজা থানচি। আপনি চান্দের গাড়ী রিসার্ভ করে নিতে পারেন। খরচ পরবে ৩০০০ টাকার মত। আমি প্রেফার করব লোকাল চান্দের গাড়ী। এটায় ভাড়া পড়বে ১০০-১৫০ টাকা করে। মাঝে বলিপাড়ায় কিছুক্ষন যাত্রা বিরতি। সকালে রওনা দিলে দুপুরের মধ্যে থানচি পৌছে যাবেন। থানচি তে ব্রীজ বানাচ্ছে, তাই ঐপাড়ে গাড়ী যায় না। সাংগু হেটে পার হয়ে থানচি বাজারে পৌছাবেন। সবার আগের কাজ BDR কে আপনার ১৪ গুস্টির নাম ধাম দিয়ে তাদের পারমিশন নেয়া। বাজারেই খাওয়া দাওয়া করে নিতে পারেন। খরচ খুব বেশী পরবে না। এখন নৌকা আর মাঝি ঠিক করতে হবে। এখানে আলাদা কোন গাইড নাই। মাঝিরাই গাইডের কাজ করবে। খরচ ডিপেন্ড করবে আপনি কয়দিনের জন্য নৌকা রিসার্ভ করবেন। প্রতিদিনের জন্য প্রায় ৮০০-৯০০টাকা পড়বে। আপনি ২টা প্লান করতে পারেন Plan 1 দিন ১ – বান্দারবান-থানচি থেকে তিন্দু (এখানে রাতে থাকতে পারেন সেখানকার ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা মেম্বারের বাসায়, আর যদি আপনার তাবু থাকে তাইলে ত কথাই নাই। খাওয়া দাওয়ার চিন্তা নাই। তারাই রেঁধে দিবে। মুরগীর ঝোল তারা অসাধারন রাঁধে। থাকা খাওয়ার খরচ প্রতিদিন ২০০টাকা করে পরবে, পার হেড ) দিন ২- তিন্দু থেকে রেমাক্রি হয়ে ছোট মওদক- বড় মওদক (রেমাক্রি রাতে থাকতে পারেন উপজাতিদের বাসায়, যদি আপনার তাবু থাকে তাইলে ত কথাই নাই) দিন ৩- ফিরতি পথে থানচি। রাতে থানচি তে রাত্রি যাপন। এখানে সরকারি রেস্ট হাউস আছে। ভালই। পার হেড ৫০টাকা করে নিসিলো দারোয়ান ব্যাটা। দিন ৪- সকাল বেলা তাজিনডং এর পথে যাত্রা। ফিরতে ফিরতে রাত হয়ে যাবে। থানচি রেস্ট হাউসেই থাকবেন। দিন ৫- থানচি থেকে বান্দারবান। বিকালে স্বর্ন মন্দির দেখে রাতে ঢাকার উদ্দেশ্য রওনা দিবেন। Plan 2 বগালেক থেকে কিওক্রাডং হয়ে তাজিনডং সামিট করবেন। তার পর উপরের প্লান অনুযায়ী ঠিক ঠাক করে নেবেন। Plan 1 হিসেবে গেলে আনুমানিক খরচ পড়বে প্রায় ৩০০০টাকা। Plan 2 হিসেবে গেলে আনুমানিক খরচ পড়বে প্রায় ৫০০০টাকা। অবশ্য খরচ পুরোটাই ডিপেন্ড করবে আপনার টিমের উপর। টিম মেম্বার যত বেশী হবে মাথা পিছু খরচ ততোই কমে যাবে


Share with :

Facebook Twitter