মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

তিন্দু ইউনিয়নের ইতিহাস

তিন্দুইউনিয়ন, বাংলাদেশের বান্দরবান জেলার থানচি উপজেলার একটি প্রশাসনিক এলাকা। প্রাকৃতিক আকর্ষণের কারণে এ্যাডভেঞ্চার প্রেমী পর্যটকদের কাছে অঞ্চলটি একটি আকর্ষণীয় পর্যটন স্থান।

১৮২৪ খ্রিস্টাব্দে বার্মা-ব্রিটিশ যুদ্ধের পর এই অঞ্চলটি আরাকান ব্রিটিশ-ভারতের একটি প্রাদেশিক অঞ্চলের অন্তর্ভুক্ত ছিল। এ অঞ্চলে অভিবাসীদের স্থায়ীভাবে বসতি শুরু হয় তখনই। পরে ১৯০০-এররেগুলেশন-১(পার্বত্য চট্টগ্রাম ম্যানুয়াল) এদেরকে স্থায়ী বাসিন্দার স্বীকৃতি দেয়।

তিন্দু ইউনিয়নের আয়তন ১,১২,৬৪০একর (৪৫৫.৮৪বর্গকিলোমিটার)। সাঙ্গু নদী এই উপজেলার বুকচিরে বয়ে চলেছে। তিন্দু ইউনিয়নের উত্তরে থানচি ইউনিয়ন, দক্ষিণে রেমকরি ইউনিয়ন(রেমাক্রি), পূর্বে চীন(মায়ানমার) সীমান্ত।

বাংলাদেশের ১৯৯১ খ্রিস্টাব্দের আদমশুমারি অনুযায়ী তিন্দু ইউনিয়নের জনসংখ্যা ২০৪৮ জন। সাক্ষরতার হার ৪.৬%। তিন্দু মাতৃতান্ত্রিক মারমামুরংদের আবাসস্থল।

প্রধান ফসলের মধ্যে রয়েছে ধান, তিল, হলুদ, আদা এবং শাকসবজি। প্রধান ফল কাঁঠাল, কলা। তিন্দুতে রয়েছে একটি বাজার এবং একটি বৌদ্ধ মন্দির।

তথ্যসূত্রঃ থানচি উপজেলা, বাংলাপিডিয়া(সিডিভার্সন), ভার্সন2.0.0।পরিদর্শনের তারিখ: আগস্ট ২০, ২০১১ খ্রিস্টাব্দ।


Share with :

Facebook Twitter